নেদারল্যান্ডে “আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে”র সামনে বিশাল মানববন্ধনে ইউরোপের ১৬টি দেশের শত শত প্রবাসী বাঙ্গালীদের যোগদান
মোস্তফা জামান, হল্যান্ড (শনিবার ১৬ জুন ২০১২, ১ আষাড় ১৪১৯, ২৫ রজব ১৪৩৩):- হল্যান্ড আওয়ামী লীগের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে যে, ‘৭১-এর মানবতাবিরোধী অপরাধ ও ঘৃণ্য যুদ্ধাপরাধীদের দ্রুত বিচারের দাবীতে-এবং বিশ্বজনমত গড়ে তোলার লক্ষে ১১ই জুন ২০১২, হল্যান্ড আওয়ামী লীগের আয়োজনে, সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের সার্বিক সহযোগীতায় নেদারল্যান্ডস্হ ডেনহাগ শহরে “আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে”র সামনে এক বিশাল ‘সমাবেশ ও মানববন্ধন’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ‘সমাবেশ ও মানববন্ধনে’ সভাপিতত্ব করেনঃ হল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব মাঈদ ফারুক।পরিচালনা করেন, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা জামান।

উক্ত সমাবেশ ও মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেনঃ সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের সম্মানিত সভাপতি ও জাতীয় কমিটির সদস্য-শ্রী অনিল দাশ গুপ্ত ও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক জ্বনাব এম এ গণি। সমাবেশের প্রধান বক্তা ছিলেন, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা পরিষদের সদস্য অধ্যাপক আবুল হাশেম ও বিশেষ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি জনাব জালাল উদ্দিন আহমেদ। উক্ত সমাবেশে-ইউরোপের ১৬টি দেশের প্রত্যেক আওয়ামী লীগ শাখা কমিটির সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দসহ শতশত প্রবাসী বাঙ্গালীরা যোগদান করেছেন। 
উক্ত সমাবেশ ও মানববন্ধনের শুরুতেই আয়োজক ও স্বাগতিকঃ হল্যান্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এমদাদ হোসেন, আবরার হোসেন শামীম, ইমরান হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুরাদ খান, সাংগঠনিক সম্পাদক জয়নাল আবদীন, রশীদ রানা ও প্রচার সম্পাদক মুহিন উদ্দিন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

উক্ত সমাবেশ ও মানববন্ধনে উপস্থিত সম্মানিত নেতৃবৃন্দ ও অতিথিদের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেনঃ অষ্ট্রিয়া প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী, লেখক সাংবাদিক এম নজরুল ইসলাম, সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল্লাহ আল বাকি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম হক ও সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম কিবরিয়া এবং সদস্য মুজিবুর রহমান।

যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাজিদুর রহমান ফারুক ও সাংগঠনিক সম্পাদক সাহাবুদ্দিন চঞ্চল, ইতালি আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহাতাব হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবুল কাসেম, ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সভাপতি মোজতবা মুজুমদার বাচ্চু ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলী লিংকন, সুইডেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির, অষ্ট্রিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি খন্দকার হাফিজুর রহমান নাসিম, স্পেন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাকিল খান পান্না ও সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নয়ন, পর্তুগাল আওয়ামী লীগের সভাপতি রাফিকউল্লাহ, ফিনল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রমজান আলী ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ হুমায়ুন কবির, জার্মান আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইউনুস খান ও সাধারণ সম্পাদক শেখ বাদল আহমেদ, বেলিজয়াম আওয়ামী লীগের সভাপতি বজলুর রশীদ বুলু, আয়্যারল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড এবং নরওয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতি/ সাধারণ সম্পাদক প্রমুখ।
মানবতাবিরোধী অপরাধ ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের পক্ষে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সমর্থন চেয়ে, উক্ত সমাবেশ ও মানববন্ধনের আয়োজক ও স্বাগতিকঃ হল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মাঈদ ফারুক এবং সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের সম্মানিত সভাপতি শ্রী অনিল দাশ গুপ্তের নেতৃত্বে-একটি প্রতিনিধি দল, সমাবেশে উপস্থিত সকল নেতৃবৃন্দ ও অতিথিদের স্বাক্ষর সংবলিত একটি ‘স্মারক লিপি’ নেদারল্যান্ডস সময় বিকেল ৩ ঘটিকায়-‘আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্র্যাইব্নুালে’র প্রেসিডেণ্ট জজ সাং হিউন সং-এর নিকট প্রদান করেছেন। ইউরোপের প্রবাসী বাংলাদেশী বাঙ্গালী কমিউনিটির ইতিহাসে এই প্রথম বিশ্বের একিট মাত্র ‘আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্র্যাইব্নুাল’ যার-প্রেসিডেণ্ট এর নিকট এই ভাবে স্মারক লিপি হস্তান্তর করা সম্ভব হয়েছে।

শুধু তাই নয়-এখানে আরও উল্লেখ করা হচ্ছে যে, (১) জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন (২) ইউরোপীয়ান কমিশনের প্রেসিডেণ্ট জোসে ম্যানোনিয়কল বারাসো (৩) কমনথওয়েলথ সেক্রেটারী জেনারেল কমলেশ সরমা (৪) এমএস লাউস আরবোর, হাইকমিশনার ফর হিউম্যান রাইটস জেনেভা (৫) স্যার নিকোলাস ব্রাটজা, প্রেসিডেণ্ট অফ দি ইউরোপীয়ান কোর্ট অফ হিউম্যান রাইটস ষ্ট্রাসবোর্গ (৬) দি স্পিকার দি আরটি জন বেরকাউ, এমপি, দি ‘হাউস অফ কমনস’ লন্ডন (৭) মিঃ আনড্রিউ স্কেয়ার, এমপি, দি স্পিকার অফ দি পার্লামেণ্ট অব কানাডা (৮) মিঃ পের ওয়েষ্টারবের্গ দি স্পিকার অব দি পার্লামেণ্ট অব সুইডেন (৯) নরবেরট লামারট, প্রেসিডেণ্ট অব দি ফেডারেল রিপাবলিক অব জার্মানী (১০) মিঃ হেইনস ফিসার দি ফেডারেল প্রেসিডণ্ট অব অষ্ট্রিয়া (১১) মিঃ ইয়োডোইনো, প্রেসিডেণ্ট অব দি ড্যানিস পার্লামেণ্ট ডেনমার্কসহ ইউরোপের সকল দেশে ঔ ‘স্মারক লিপি’ একেযাগে এবং ডাঘযোগে প্রেরণ করা হয়েছে। এবং পর্যায়ক্রমে এই ‘স্মারক লিপি’ বিশ্বের সকল দেশের পার্লামেণ্ট ও বিশ্ব নেতৃবৃন্দদের নিকট প্রেরণ করা হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

উক্ত সমাবেশ ও মানববন্ধনে অন্যান্যদের মাঝে স্বাগতিকঃ হল্যান্ড আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মতিউর রহমান, সহ-সভাপতি নান্টু মৃধা, সন্দীপ কুমার দাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন, দফতর সম্পাদক মাসুদ রহমান, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক শামীম আক্রাম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক নীপু দাশ, কোষাধ্যক্ষ লক্ষন সরকার, জাহিদ হোসাইন, কামাল হোসেন, ও আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

ইউরোপের বিভিন্ন দেশের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও অতিথিবৃন্দ যারা সমাবেশে অংশগ্রহন করেছেন, তারা হলেনঃ এম, এ, কাসেম, দেলুয়ার হোসেন, মোহাম্মেদ মিন্টু, এস এ শহীদ, মহসিন হাবিব ভূইয়া, আকরাম খান, ফরহাদ আলী, আতিকুজ্জামান, হেনরি ডে কষ্টা, ইদ্রিস ফরাজী, হোসনে আরা বেগম, বিএম মোসলেম, মহসিন মিলন, নজরুল ইসলাম, হাসনাত মিয়া, জাহাঙ্গীর ফরাজী, এমএ রব মিন্টু, সিরাজুল হক খান রানা, সাব্বির আহমেদ, এম এ হুমায়ুন, মোঃ মোজাফর হোসাইন, শাহজাহান লাবু, লিটন মোল্লা, চৌধুরী শহীদ আহমেদ, জয়নাল আবদীন, শাহ আলম, আব্দুস সালাম, রাজা হারুনুর রশীদ, আলমগীর হোসাইন, নজরুল ইসলাম খায়েদ, মুমিন উদ্দিন কাজল, ফিরোজ খান, খালেদ মিনহাজ, মোঃ মহিন উদ্দিন মিন্টু, তারেকুজ্জামান, এম আর মজুমদার খোকন, সমির কুমার পাল, মুকতার মোঃ সামাইও, শাহা আলম, মাহফুজ, মিসেস ইসলাম নয়ন, শহীদুল হক, এম মোরশেদ, সাইদুর রহমান, আঃ মান্নান, রাজ বাবলা, হুমায়ুন মাসুদ, সৈয়দ মহসিন মিলন, এম হক, নজরুল ইসলাম মাঝি, জামান আসাদুস, মোঃ আব্দুল্লাহ, আব্দুল কদ্দুস, এম মুনির, মহসিন উদ্দিন খান, এটিএন বাংলার সাংবাদিক হাসান মাহমুদ ও চ্যানেল আইর সাংবাদিক হেলাল উদ্দিনসহ শতশত প্রবাসী বাঙ্গালী।

উক্ত সমাবেশ ও মানববন্ধনের সকল বক্তাগণ, ‘৭১-এর মানবতাবিরোধী অপরাধ ও ঘৃণ্য যুদ্ধাপরাধীদের বিচার অতি দ্রুত সম্পন্ন করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি জোর দাবী জানিয়েছেন। তারা আরও বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার সম্পন্ন করার মধ্যদিয়েই কেবল জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করা সম্ভব। এবং এই বিচার সম্পন্ন হলেই মাত্র ত্রিশ লক্ষ শহীদের আত্মা শান্তি পাবে। যারা-ঘৃণ্য যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বানচালের অপচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে, তাদেরও বিচারের দাবী জানিয়েছে, সমাবেশের নেতৃবৃন্দ। সাম্প্রতিক, বিএনপি-জামায়াত, শিবিরের ইস্যুবিহীন লাগাতার ধব্বংস্মাতক হরতাল, জালাও-পোড়াও করে মানুষ হত্যা ও তাদের অব্যাহত ষড়যন্ত্র, সন্ত্রাস-সংঘাত এবং নৈরাজ্যকর ও দেশের অর্থনৈতিক ধ্ববংসের সকল কর্মসূচীর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করেছেন, সমাবেশের সকল বক্তা ও নেতৃবৃন্দ।

উক্ত সমাবেশ ও মানববন্ধনে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ, সম্প্রতি, বাংলাদেশ বিশাল সমুদ্র বিজয় অর্জন করায়-মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জননেত্রী শেখ হাসিনাকে প্রাণঢালা অভিন্দন ও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেছেন। এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করার লক্ষে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার ও সবসময় তাঁর পাশে থাকার জন্যও অঙ্গীকারবদ্ধ হয়েছেন, সমাবেশের সকল নেতৃবৃন্দ।

আরও উল্লেখ করা হয় যে, ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকে- অনেক ত্যাগ ও কষ্ট স্বীকার করে, যারা আয়োজিত উক্ত সমাবেশ ও মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করে ‘সমাবেশ ও মানববন্ধন’ সফল্ করে তুলেছেন এবং এই সমাবেশ উপলক্ষে যারা সার্বিক সহযোগীতা করেছেন, এই প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তাদের সকলকে পুনঃ আন্তরিক ধন্যবাদ, কৃতজ্ঞতা ও অভ্নিন্দন জানিয়েছেন, আয়োজক ও স্বাগতিকঃ হল্যান্ড আওয়ামী লীগের পক্ষে-সভাপতি জনাব মাঈদ ফারুক ও সাধারণ সস্পাদক মোস্তফা জামান। আয়োজিত মানববন্ধনে যোগদানকারী বিপুল সংখ্যক সম্মানিত অতিথিদের নাম জানা না থাকায়-এই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তাদের নাম উল্লেখ করা সম্ভব হলোনা বলেও স্বাগতিক কর্তৃপক্ষ দুঃখিত।

এখানে আরো জানানো হচ্ছে যে, উক্ত সমাবেশ ও মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করে, ইহা সম্পূর্ণ ভাবে সফল করায়- সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকেও সকল নেতৃবৃন্দকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভ্নিন্দন জানিয়েছেন, সম্মানিত সভাপতি শ্রদ্ধেয়-শ্রী অনিল দাশ গুপ্ত ও সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক শ্রদ্ধেয়-জ্বনাব এম এ গণি। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

Popular posts from this blog

THE CONSTITUTION OF THE BANGLADESH AWAMI LEAGUE